কাপ নিয়ে কোপাকুপি

কাপ নিয়ে কোপাকুপি

একটি কাপের দখল নিয়ে
ঘটলো সে কি কান্ড,
ছ’জন গেল হাসপাতালে
হায় রে চায়ের ভান্ড!
কর গুনে আর হিসেব কষে
দেখল হোসেন মিয়া,
এক কুড়ি – আট বয়স হল
হয়নি আজও বিয়া।
হাত ভেঙেছে, ভেঙেছে পা
দেয়নি তবু ছাড়,
কাপখানা তার করবে দখল
সাধ্য এমন কার?
ভাঙলে ভাঙুক দুইখানা দাঁত
চোট লাগেনি ঠোঁটে,
এই খবরে জুটবে কনে
সন্দেহ নেই মোটে।।

১৪/০৯/২০১৯ খ্রিঃ
[ছবি এডিটেড]

Advertisements

একালের অসুর

একালের অসুর

সামাল সামাল, সাবধানে সব
চিনতে হবে অসুর,
হাত-পা তাদের মানুষ মানুষ
হৃদয়টা তো পশুর।
হয়তো তাদের নেই দুটি শিং
কিংবা লোমশ দেহ,
তীক্ষ্ণ নখ আর বিশাল দাঁতের
খোঁজ পাবেনা কেহ।
তবু জেনো যায়নি মুছে
অসুর বংশ- নাম,
আজ অবধি দাপিয়ে বেড়ায়
এইনা ধরাধাম,
সদাই তারা অস্ত্র হাতে
বেড়ায় ঘুরে ফিরে,
সুজোগ বুঝে ঝাঁপিয়ে পড়ে
পাঁজর দেবে চিরে।।

২৭/০৬/২০১৯ খ্রিঃ
[ছবি ইন্টারনেট থেকে]

চিংকু চাচার চিন্তা

চিংকু চাচার চিন্তা
রিপোর্ট দেখে ডাক্তারে কয়
হইছে চিকুনগুনিয়া,
চক বাজারের চিংকু চাচা
চমকে ওঠে শুনিয়া।

কিচ্ছু যে তার ভাল্লাগেনা,
ভাল্লাগেনা হাসের ডিম,
ভাল্লাগেনা গরম ভাতে
সিদ্ধ আলু-বেগুন-শিম,
লাগতো ভালো আস্ত মোরগ
খাইতো যদি ভুনিয়া।

ইচ্ছে ছিল এই সিজনে
ঘুরতে যাবে ডেলফিতে,
দাঁত কেলানো হাজার ছবি
থাকবে স্মৃতির সেলফিতে।
এখন শুধু কোঁকায় শুয়ে
চক্ষে আঁধার দুনিয়া।

দোষটা ঘরের মানুষগুলোর
দেখায় শুধু আলগা ঠাট,
ফিটিং ফাটিং বাইরে কেবল
অন্দরে তার সদর ঘাট,
ঘরের কোণে পুষছে মশা,
নয়তো শখের মুনিয়া।।

২৭/০৬/২০১৯ খ্রিঃ

পাইনি সাড়া

পাইনি সাড়া

হাতের কাছে পুকুর ছিল
সেই পুকুরে জল,
জলের পরে তোমার ছায়া
পড়ল অবিকল।
একটুখানি ছোঁয়ার আশায়
হাত বাড়ালাম যেই,
ঢেউ খেলে যায় জলের বুকে
অমনি তুমি নেই।

মাথার পরে আকাশ ছিল
আকাশটা বেশ নীল,
নীলের সাথে তোমার শাড়ির
অবাক করা মিল।
সেই আঁচলের পরশ পেতে
মন হল চঞ্চল,
হঠাত আকাশ করল আড়াল
বুনো মেঘের দল।

বাগান জুড়ে ফুলের বাহার
হাজার রকম ফুল,
সে ফুল দিয়ে সাজাতে চাই
তোমার দীঘল চুল।
আপন মনে ফুল কুড়োতে
ব্যস্ত ছিলাম বলে,
পাইনি সাড়া, এ পথ দিয়ে
কখন গেছ চলে।।

০৫/০৬/২০১৯ খ্রিঃ
[ছবি ইন্টারনেট থেকে]

মুগ্ধ তোমাতেই

মুগ্ধ তোমাতেই

চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে
চোখ তুলেছি যেই,
হারিয়ে গেল মুখের ভাষা
চোখের নিমেষেই।
নীল তোয়ালে জড়িয়ে নিয়ে
ভেজা চুলের ভাঁজে,
তুমি তখন ব্যস্ত ভীষণ
চুল শুকানোর কাজে।
সিঁথির মাঝে সিঁদুর পরো
কপালে টিপ লাল,
উথলে ওঠে হৃদয় আমার
মানেনা লয়-তাল।
আমি কেবল অবাক হয়ে
ভাবতে থাকি তাই,
কেমন করে নিত্য তোমায়
নতুন রূপে পাই!
আবেশী মন আনমনা হয়
হারিয়ে ফেলে খেই,
মুগ্ধ ছিলাম, মুগ্ধ আছি
মুগ্ধ তোমাতেই।।

০২/০৬/২০১৯ খ্রিঃ
[ছবি ইন্টারনেট থেকে]

আল্পনা

আল্পনা

ঠান্ডা হাওয়ার সাথে
বৃষ্টির ঝাপটা,
হুট করে কমে গেল
গ্রীষ্মের তাপটা।
ভেজা ডানা মেলে ওড়ে
পায়রার ঝাঁকটি,
নির্জন চুপচাপ
রাস্তার বাঁকটি।
দরোজার ফাঁক গলে
জুঁইফুল তিনটি,
উড়ে এল তাই বুঝি
ভালো যাবে দিনটি।
ওই দূরে থেকে থেকে
বজ্ররা চমকায়,
এলো চুল ওড়ে তার
বাতাসের দমকায়।
জানালার কাঁচ জুড়ে
অপলক দৃষ্টি,
ক্ষণিকের আল্পনা
এঁকে যায় বৃষ্টি।।

০১/০৬/২০১৯ খ্রিঃ
[ছবি ইন্টারনেট থেকে]

এত্তো গরম

এত্তো গরম

বাইরে গরম, ঘরে গরম
গঞ্জে ও বন্দরে গরম।
ডাঙ্গায় গরম, জলে গরম
ব্যস্ত শপিং মলে গরম।
উঠতে গরম, বসতে গরম
মাসের হিসাব কষতে গরম।
হাসতে গরম, কাঁদতে গরম
চুলার ধারে রাঁধতে গরম।
পরতে গরম, খুলতে গরম
লোকাল বাসে ঝুলতে গরম।
হাঁটতে গরম, চলতে গরম
উচিৎ কথা বলতে গরম।
এত্তো গরম, এত্তো গরম
কমবে কবে তাই কি জানি?
আকাশ ভেঙ্গে বৃষ্টি এলে
স্বস্তি পেতাম একটুখানি।।

৩১/০৫/২০১৯ খ্রিঃ
[ছবি ইন্টারনেট থেকে]